Chapter-12, Othello

Ans:-Iago enticed Cassio to drink and enjoy the party to his heart's content. (ইয়াগো ক্যাশিওকে মদ খেয়ে অনুষ্ঠানটি প্রাণভরে উপভোগ করতে বলে বিপথে চালিত করেছিল।)

Ans:-Drinking excessively, Cassio made a boundless praise of the beauty of lady Desdemona. (অতিরিক্ত পান করে, ক্যাসিও ডেসডিমনার রূপের সীমাহীন প্রশংসা করেছিল।)

Ans:-Iago was the conspirator of the riot in the party. (অনুষ্ঠানে দাঙ্গার ষড়যন্ত্রকারী ছিল ইয়াগো।)

Ans:-Michael Cassio was accused of the riot in the party. (মাইকেল ক্যাশিওকে অনুষ্ঠানে দাঙ্গার জন্য অভিযুক্ত করা হয়েছিল।)

Ans:-Cassio was displaced from the post of lieutenant. (ক্যাশিওকে লেফটেন্যান্ট পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হল।)

Ans:-Cassio lamented to be transformed into a beast by lago's Cunningness. (ইয়াগোর কুবুদ্ধিতে পশুতে পরিণত হওয়ার জন্য ক্যাশিও দুঃখ পেয়েছিল।)

Ans:- Desdemona promised Cassio to solicit for him with her lord. (ডেসডিমনা তার স্বামীর কাছে ক্যাসিওর হয়ে কথা বলার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল।)

Ans:-By his artifice Iago beguiled Cassio, and made Othello doubtful of their clandestine (চাতুরির দ্বারা ইয়াগো ক্যাসিওকে ভুল পথে চালিত করল আর তাদের গোপন সম্পর্কের ব্যাপারে অথেলোবে সন্দেহপ্রবণ করে তুলল।)

Ans:-The handkerchief given to Desdemona by Othello was now with Cassio. (ডেসডিমনাকে দেওয়া রুমালটা এখন ক্যাসিওর কাছে ছিল।)

Ans:- Iago pointed that if she could deceive her own father, she might deceive her husband. (ইয়াগোর যুক্তি ছিল যে ডেসডিমনা যদি তার নিজের বাবাকে ঠকাতে পারে, সে তার স্বামীকেও ঠকাতে পারে।)

Ans:-His doubt and jealousy created by Iago snatched away Othello's sleep and sweet rest. (ইয়াগোর দ্বারা সৃষ্টি করা সন্দেহ ও হিংসা অথেলোর ঘুম ও মধুর বিশ্রাম ছিনিয়ে নিয়েছিল।)

Ans:-Emilia brought the handkerchief of Desdemona under pretense of getting the work copied, but in reality she dropped it on Cassio's way. (এমিলিয়া ডেসডিমনার রুমালটার কাজ নকল করার অছিলায় এনেছিল, কিন্তু প্রকৃতপক্ষে সে এটা ক্যাসিওর পথে ফেলে দিয়েছিল।)

Ans:-Covering up in the bed-clothers, Othello stifled Desdemona to death. (বিছানা চাদর দিয়ে জড়িয়ে অথেলো তার স্ত্রী ডেসডিমনাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করল।)

Ans:-Certain letters found in the pocket of one of lago's creatures proved it. (ইয়াগোর কেনা গোলামদের একজনের পকেটে পাওয়া চিঠিগুলি এটা প্রমাণ করেছিল।)

Ans:-Cassio wanted to know from Othello why he had asked Iago to murder him. (ক্যাশিও অথেলোর কাছে জানতে চেয়েছিল কেন সে ইয়াগোকে তাকে হত্যা করতে বলেছিল।)

Ans:-Proofs and Cassio's query appeared to Othello as a thunderstroke. (প্রমাণ এবং ক্যাসিও-র অভিযোগ অথেলোর কাছে বজ্রাঘাত রূপে এসেছিল।)

Ans:-Othello committed suicide by his own sword. (অথেলো নিজের তরোয়াল দিয়ে আত্মহত্যা করেছিল।)

Ans:-He could not mercy himself for murdering his innocent lady. (তার নিষ্পাপ স্ত্রীকে হত্যা করার জন্য সে নিজেকে ক্ষমা করতে পারল না।)

Ans:-lago was executed with strict tortures. (কঠোর অত্যাচারের দ্বারা ইয়াগোকে হত্যা করা হল।)

Ans:-The news sent to the state of Venice was the lamentable death of their renowned general. (তাদের বিখ্যাত সেনাধক্ষ্যের করুণ মৃত্যুর বার্তা ভেনিসে পাঠানো হয়েছিল।)

Ans:-By his bravery, skill in war, and noble demeanour, Othello, the black Moor, rose the Generalship of the Venetian army. By listening to the fantastic stories of varied experiences of his life, the fair Desdemona fell in love with him. Othello too felt her charm, and the two were soon secretly married. The married couple soon started for Cyprus, where Othello was to fight the invading Turkish fleet. Othello is heroic, noble and simple-minded, and he loves Desdemona immensely. He also likes Cassio who can entertain his wife through interesting talks and amusing anecdotes. In Cyprus Othello makes Cassio the Lieutenant of the army, and this move makes another officer, lago, who expected the post, angry with both Othello and Cassio. He seeks to avenge himself upon them, and makes a shrewd plan. Cassio was one night in charge of guards. But lago by clever arguments persuades him to drink a lot. In a drunk state Cassio quarrels with others and wounds a man. Othello now has to punish Cassio. He strips him of lieutenantship. That shows his regard for discipline. But he plays in the hands of Iago who suggests to him that Desdemona and Cassio are involved in an illicit love. The flame of jealousy once lighted begins to grow in his heart. It becomes a conflagration when lago tells him that Desdemona has given Cassio the handkerchief which Othello had given her as a special wedding present. Othello is now convinced that his wife is unfaithful to him, and it completely breaks his heart. He feels that his dissembling wife should be killed, or she will betray more men. But he is torn with grief at having to do such a thing. What a dire struggle goes in his mind! In the Murder Scene he keeps looking at the beauty of the sleeping, innocent Desdemona. He goes on kissing her again and again. But the tears he sheds are 'cruel tears'. And finally, with a sudden effort, he strangles his wife to death. Jealousy and credibility are his tragic weaknesses.

It is a pity that Othello commits the murder when he does; because moments after it he gets proof of lago's villains and the innocence of both Desdemona and Cassio. Remorsefully Othello takes his own life, falling on a sword. His last words sum up his character as a man who has served the State of Venice sincerely and efficiently, and as a lover, who 'loved not wisely, but too well, and though he never easily cried, he, on fit occasions, 'dropped tears as fast as Arabian trees their gums'.

(কৃষ্ণবর্ণ মূর ওথেলো তার বীরত্ব, যুদ্ধকৌশল এবং শৌর্যপূর্ণ ব্যবহারের ফলে ভেনিসের সেনাধ্যক্ষ পদে উন্নীত হয়েছিল। তার জীবনের আশ্চর্য ও বিচিত্র অভিজ্ঞতার গল্প তার মুখে শুনে শুনে শ্বেতাঙ্গিনী সুন্দরী ডেসডিমনা তার প্রেমে পড়ে। ওখেলোও তার প্রতি গভীর আকর্ষণ অনুভব করে এবং শীঘ্রই দুজনে গোপনে বিবাহে আবদ্ধ হয়। বিবাহিত | দম্পতি শীঘ্রই সাইপ্রাস যাত্রা করে, যেখানে ওথেলোকে তুরস্ক যুদ্ধজাহাজ-এর বিরুদ্ধে লড়তে হবে। ওথেলো একজন বীর, মহমনস্ক এবং খোলা মনের মানুষ। তিনি ডেসডিমনাকে অত্যন্ত বেশি ভালোবাসেন। ক্যাসিওকেও তার ভালো লাগে, কারণ সে তাঁর স্ত্রীর সঙ্গে মজার মজার গল্পগুজব করে তাকে খুশি রাখে। সাইপ্রাসে আসার পর ওথেলো ক্যাসিওকে সেনাবাহিনীর লেফটেন্যান্ট পদে উন্নীত করল আর তার ফলে ওই পদের জন্য আকাঙ্ক্ষিত প্রার্থী ইয়াগো নামে এক অফিসার ক্যাসিও এবং ওথেলো দুজনের প্রতিই ক্রুদ্ধ হল। সে দুজনের ওপর প্রতিশোধ নেবার জন্য এক চতুর পরিকল্পনা করল। এক রাতে ক্যাসিওর ওপর দায়িত্ব ছিল রক্ষীদের সামলে রাখার। ইয়াগো ক্যাসিওকে নানাভাবে প্রলুব্ধ করল মদ্যপানে। অতিরিক্ত পান করে মদ্যপ অবস্থায় ক্যাসিও অন্যদের সঙ্গে ঝগড়া করল, এবং একজনকে আঘাত করল। এখন ওথেলো ক্যাসিওকে শাস্তি দিতে বাধ্য হল। সে তার কাছ থেকে লেফটেন্যান্টের দায়িত্ব কেড়ে নিল। সৈন্যদলে শৃঙ্খলা ও নিয়মানুবর্তিতা যে তাঁর কাছে অনেক গুরুত্বপূর্ণ সেটা স্পষ্ট হয়ে গেল। কিন্তু এরপর সে ইয়াগোর হাতে কলের পুতুলের মতো নাচতে থাকল, যে তাকে বোঝাল যে ডেসডিমনা এবং ক্যাসিও এক অবৈধ প্রণয়ে লিপ্ত। ঈর্ষার এই অগ্নিশিখা একবার জ্বালানো হতেই ওথেলোর মনে তা ক্রমশ বড়ো হতে লাগল। এটা একটা বড়ো অগ্নিকাণ্ডের আকার ধারণ করল, যখন ইয়াগো তাকে বলল যে ডেসডিমনাকে যে বিশেষ রুমালটি ওথেলো বিয়ের পর উপহার দিয়েছিল, সেটি ডেসডিমনা ক্যাসিওকে দিয়েছে। এখন ওথেলোর স্থির বিশ্বাস হল যে তার স্ত্রী বিশ্বাসঘাতিনী, এবং এর ফলে তাঁর হৃদয় ভেঙে টুকরো টুকরো হয়ে গেছে। তার মনে হল এমন দ্বিচারিণী স্ত্রীকে হত্যা করা উচিত, না হলে সে আরও অনেককে ঠকাবে। কিন্তু ওই কাজ করতে হবে ভেবে দুঃখে তার হৃদয় জর্জরিত হয়ে পড়ল। তার মনের মধ্যে এক সাংঘাতিক দ্বন্দ্ব কাজ করতে লাগল। হত্যা-দৃশ্যে সে বিহ্বলভাবে বহুক্ষণ তাকিয়ে থাকল তার নিষ্পাপ ঘুমন্ত স্ত্রীর সুন্দর শরীরের দিকে। সে বারবার চুম্বন করতে থাকে তাকে। কিন্তু মনোকষ্টে তার চোখে জল আসে, সে সেটাকে ‘নিষ্ঠুর অশ্রু” বলে। অবশেষে হঠাৎ একটা প্রবল চেষ্টায় নিজেকে শক্ত করে সে তার স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করল। ঈর্ষাপরায়ণতা এবং বিশ্বাসপ্রবণতাই হল ওথেলোর নিদারুণ দুর্বলতা।

এটা গভীর পরিতাপের বিষয় যে ওথেলো অতি দ্রুত স্ত্রীকে হত্যা করার অপরাধ করে ফেলল : কারণ নাতিবিলম্বে সে প্রমাণ পেল যে সবটাই ছিল ইয়াগোর শয়তানি এবং ডেসডিমনা ও ক্যাসিও দুজনেই নির্দোষ ছিল। অনুশোচনায় দগ্ধ হয়ে ওথেলো নিজের বুকে ছুরিকাঘাত করে প্রাণ দিল। তার শেষ কথাগুলির মধ্য দিয়েই তার চরিত্রের কয়েকটা দিক ফুটে উঠেছে। যে ভেনিস রাষ্ট্রকে তার আন্তরিক ও সুদক্ষ সেবা দিয়েছেন। প্রেমিক হিসেবে সে খুব বেশি ভালোবেসেছে, কিন্তু সে ভালোবাসায় প্রজ্ঞা ছিল না। আর, যদিও সে সহজে কাঁদত না, তবু তেমন কারণ হলে আরব দেশে আঠাগাছ থেকে যেমন অবিরাম আঠা ঝরে, তেমনি তার দু-চোখ থেকে টুপটুপ করে অশ্রু ঝরে পড়ে।)

Ans:-Beautiful and young Desdemona was the only daughter of Brabantio, a Venetian Senator. The latter would often invite Othello, the Moor, to his house. Othello, though a black, was the General of the Venice army, and he was a good story- teller. He would often tell the stories of so many battles he had fought by land and water. He would describe the various places he had visited, some of which were very strange and remote. He narrated his experiences of facing great dangers, and even of being sold as a slave, after being a war-prisoner. He talked about mountains and wild places, and cannibals and the strange people in Africa whose heads grow beneath their shoulders. Desdemona would listen to these stories with rapt attention. She felt not only wonder, but also a deep admiration and sympathy for the man who has seen so much and experienced such a vast variety of things and situations. Desdemona requested him to tell her one day the whole story of his life, and when she heard about his distresses her eyes would be full of tears. She felt gradually a genuine passion of love for Othello, and she hinted to him that anybody who can tell such stories would successfully woo her. She preferred this black gentleman to any lover of her own white race to be her husband. She encouraged Othello to love her, and Othello readily responded. This is how Desdemona fell in love with Othello by listening to his fantastic stories and sympathising him at all his troubles, struggles and sufferings. It led to their secret marriage.

(সুন্দরী তরুণী ডেসডিমনা ভেনিসের সেনেটর ব্র্যাবানশিওর একমাত্র কন্যা ছিল। ব্র্যাবানশিও প্রায়ই মূর ওথেলোকে নিজের বাড়ি নিমন্ত্রণ করে আনাত। ওথেলো ছিল ভেনিস সেনাবাহিনীর অধ্যক্ষ, যদিও তার গায়ের রং কালো, এবং সে ভালো গল্প বলতে পারত। সে প্রায়ই অজস্র যুদ্ধের কথা বলত যেগুলি সে জলপথে ও স্থলপথে করেছিল। সে যে সমস্ত জায়গায় গিয়েছে, সেগুলির মধ্যে কয়েকটি অত্যন্ত অসাধারণ এবং দূরবর্তী, তার বর্ণনা দিত। মারাত্মক বিপদের মুখোমুখি হওয়ার অভিজ্ঞতার কথাও বলত, এমনকি কীভাবে যুদ্ধবন্দি হবার পর ক্রীতদাস হিসেবে তাকে বেচে দিয়েছিল শত্রুরা, সে কথাও। সে পর্বত এবং দুর্গম বন্য অঞ্চল নরখাদকদের কথা এবং আফ্রিকার সেই এক অদ্ভুত জাতির বর্ণনা দিত যাদের মাথা কাঁধের নীচ থেকে গজায়। ডেসডিমোনা এই সব গল্প পরম মনোযোগ দিয়ে শুনত। সে শুধু বিস্মিতই হত না, সেই সঙ্গে গল্পের বক্তার প্রতি এক গভীর প্রশংসা ও সহানুভূতি অনুভব করত। কারণ সে এত কিছু দেখেছ এবং এত সব জিনিস ও পরিস্থিতি সম্বন্ধে অভিজ্ঞতা অর্জন করেছে। ডেসডিমনা তাকে অনুরোধ করেছে একদিন তার বিচিত্র জীবনের সমস্ত কাহিনি শোনাবার জন্য এবং যখনই সে তাঁর নানা দুঃখকষ্টের কথা শুনত, ডেসডিমনার দু-চোখ জলে ভরে উঠত। ক্রমশ ওথেলোর প্রতি তার অন্তরে প্রকৃত প্রেমের অনুভূতি জেগে উঠল এবং সে ইঙ্গিতে তাকে জানাল যে, এমন গল্প যে বলতে পারে সে সহজেই তার প্রেম জয় করে নিতে পারে। সে এই কৃষ্ণবর্ণ ভদ্রলোককে তার স্বামী হিসেবে গ্রহণ করতে চাইল, শেতাঙ্গ শ্রেণির প্রেমিকদের তুচ্ছ করে। সে ওথেলোকে প্রেম নিবেদনে উৎসাহিত করল, আর ওথেলোও সানন্দে তাতে সাড়া দিল। এইভাবে ডেসডিমনা ওথেলোর অসাধারণ আকর্ষণীয় গল্প শুনতেশুনতেই তার প্রেমে পড়ে গেল এবং তার দুঃখ, কষ্ট ও সংগ্রামের সঙ্গে নিজেকে জড়িয়ে ফেলল সহানুভূতি সূত্রে। এর ফলেই তারা গোপনে বিয়ে করে ফেলল।)

Ans:-When Brabantio, the veteran senator of Venice, learnt that his only daughter, Desdemona, has secretly married Othello, the black Moor, he could not accept it. He never thought that his daughter would marry anybody but a white senator. Grieved and insulted, he approached the Senate and wanted Othello to be punished for two offences. One was practising witchcraft and magical spell to seduce his daughter into marrying him. The other was gross misuse of his hospitability.

It so happened that the Senate at that time, on the very night, was in great need of Othello’s service at Cyprus where Turkish fleet was about to attack the city. But still the Duke and the senators listesed to allegations of Brabantio against Othello with patience. But Brabantio could not produce any proof of spell or witchcraft practiced by Othello. On the other hand, Othello in his self defense clearly told the listeners what kind of stories he narrated at Brabantio's house and how, impressed by them, Desdemona fell in love with him. On hearing this plain truth, the Duke admitted that there was no witchcraft in it, and even his own daughter might be moved by such stories. Desdemona also spoke in support of Othello. So Othello was acquitted of the charges, and even Brabantio felt ashamed of what he did. He apologised to Othello, and willingly gave his daughter away to him.

(ভেনিসের প্রবীণ সেনেটর, ব্র্যাবানশিও যখন জানলেন যে তাঁর একমাত্র কন্যা ডেসডিমনা গোপনে কৃষ্ণবর্ণ মুর ওথেলোকে বিবাহ করেছে, তিনি সেটা মেনে নিতে পারলেন না। তিনি কখনও ভাবেননি যে তাঁর মেয়ে শ্বেতকায় সেনেটর ছাড়া অন্য কাউকে বিয়ে করবে। দুঃখিত এবং অপমানিত বোধ করে তিনি এই নিয়ে সিনেটে নালিশ করলেন এবং দুটি অপরাধের জন্য তিনি ওথেলোর শাস্তি দাবি করলেন। এক, ডাইনিবিদ্যা এবং জাদু প্রয়োগ করে তাঁর মেয়েকে বিয়ে করতে প্ররোচিত করা। দুই, আতিথেয়তার চরম অবমাননা করা।

ঘটনাচক্রে সেনেটে ঠিক তখনই, সেই রাতেই সাইপ্রাসে ওথেলোর সাহায্যের জরুরি প্রয়োজন হয়ে পড়েছিল, যেখানে তুরস্কের রণতরীবাহিনী সাইপ্রাস শহরটি আক্রমণে উদ্যত হয়েছিল। কিন্তু তবু ডিউক এবং অন্য সেনেটররা ওথেলোর বিরুদ্ধে ব্র্যাবানশিশুর অভিযোগ ধৈর্যসহকারে শুনলেন। কিন্তু ব্র্যাবানশিও ওথেলোর জাদু বা ডাইনিবিদ্যা প্রয়োগের ব্যাপারে কোনো প্রমাণই দিতে পারলেন না। অপরপক্ষে ওথেলো নিজের সমর্থনে বলতে উঠে পরিষ্কার ভাবে শ্রোতাদের জানাল কী ধরনের গল্প সে শুনিয়েছিল ব্র্যাবানশিওর বাড়িতে এবং কীভাবে সেই গল্পগুলি শুনে মুগ্ধ হয়ে ডেসডিমনা তার প্রেমে পড়েছে। এই সোজা সত্যি কথা শুনে ডিউক স্বীকার করলেন যে এমন গল্প শুনে তাঁর মেয়েও মুগ্ধ হতে পারত, এর মধ্যে কোনো ডাইনিবিদ্যার ব্যাপার নেই। ডেসডিমনা নিজেও ওথেলোর সমর্থনে বক্তব্য রাখল। সুতরাং ওথেলো তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগগুলি থেকে মুক্তি পেল, এমনকি ব্র্যাবানশিও স্বয়ং তাঁর কাজের জন্য লজ্জিত হলেন। তিনি ওথেলোর কাছে ক্ষমা চাইলেন, এবং স্বেচ্ছায় ডেসডিমনাকে দান করলেন। তার হাতে।)

Ans:-Othello had presented a special handkerchief to Desdemona after their marriage. This handkerchief was given to his mother earlier by an Egyptian woman who could read people's mind. She had told Othello's mother that so long as she would possess it, her husband would love her but if it was lost or given away to someone, her husband would hate her. Othello's mother before her death gave that handkerchief to her son and asked him to give it to his wife when he would marry. That's what Othello did. The handkerchief had magical properties. It was woven by a pagan prophetess from the silk supplied by hollowed silk-worms. Moreover it was dyed in 'mummy of maidens' heart conserved.

Iago told Othello that Desdemona had given away his special handkerchief to Cassio out of love for the latter. In reality he had employed his wife Emilia. to steal it on the pretext of copying its design, and he dropped it at Cassio's house. As directed by Iago, Othello asks his wife to produce that particular handkerchief. When Desdemona failed to produce it, Othello was convinced of her infidelity in love, as suggested by lago. The handkerchief, or the loss of it, seemed to serve as a positive proof of Desdemona's unfaithfulness to him. It is mainly on this ground that Othello reached the decision that he must kill his dear wife, and also have Cassio killed by somebody else. So the handkerchief has an enormous importance in this tragic drama. If Desdemona did not lose it, perhaps she would not have lost her life and her husband's love.

(তাদের বিয়ের পর ওথেলো ডেসডিমোনাকে একটি বিশেষ রুমাল উপহার দিয়েছিল। এই রুমালটি ওথেলোর মাকে আগে দিয়েছিল এক মিশরদেশীয় মহিলা, যে লোকের মনের চিন্তা বুঝতে পারত। সে ওথেলোর মা'কে বলেছিল, যতক্ষণ তুমি এই রুমালটি কাছে রাখবে, তোমার স্বামী তোমায় খুব ভালোবাসবে, কিন্তু যদি তুমি এটা হারিয়ে ফেল, বা কাউকে দিয়ে দাও, ওই স্বামীই তোমায় চরম ঘৃণা করবে। ওথেলোর মা তাঁর মৃত্যুর আগে ছেলেকে এই রুমালটি দিয়ে বলেছিলেন বিয়ের পর তার বউকে যেন এটা দেয়। ওথেলো তাই করেছে। রুমালটি অদ্ভুত জাদুগুণসম্পন্ন। বিশেষভাবে শুদ্ধ করা গুটিপোকাদের সিল্ক থেকে এটি বুনেছে এক আদিম ভবিষ্যদ্রষ্টা রমণী। এটির রং এসেছে অনেক উপরন্তু ‘কুমারীর মামি' করে রাখা হূৎপিণ্ডের রক্তে চুবিয়ে।

ইয়াগো ওথেলোকে বলল যে ডেসডিমনা ওই বিশেষ রুমালটি ক্যাসিওকে দিয়েছে তার প্রণয়ের নিদর্শন হিসেবে। আসলে ইয়াগো নিজেই তার স্ত্রী এমিলিয়াকে দিয়ে রুমালটি চুরি করিয়েছে এর কারুকার্যের প্রতিলিপি করার অজুহাতে এবং সে রুমালটি ক্যাসিওর বাড়ি ফেলে দিয়ে আসে। ইয়াগোর দ্বারা নির্দেশিত হয়ে ওথেলো তার স্ত্রীকে ওই রুমালটি দেখাতে বলল। যখন ডেসডিমোনা সেটি দেখাতে অসমর্থ হল, ওথেলোর বিশ্বাস হল ডেসডিমনা সত্যিই তাকে প্রেমে প্রবস্থিত করছে, ঠিক যেমন ইয়াগো বলেছে। ওই রুমাল, কিংবা রুমালটির অদৃশ্য হওয়াই প্রত্যক্ষ প্রমাণ ওথেলোর প্রতি ডেসডিমনার বিশ্বাসঘাতিনী হবার। প্রধানত এই কারণেই ওথেলো এই সিদ্ধান্তে পৌঁহাল যে, তার প্রিয় স্ত্রীকে হত্যা করা ছাড়া গতি নেই আর সেই সঙ্গে এও ঠিক করল যে, কাউকে দিয়ে ক্যাসিওকেও হত্যা করতে হবে। সুতরাং এই ট্র্যাজিক নাটকে রুমালটির এক বিশাল গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা আছে। যদি ডেসডিমনা এটি না হারাত, তাহলে হয়তো সে ওথেলোর প্রেম এবং নিজের প্রাণ কোনোটাই হারাত না।)

Ans:-After hearing from Othello the charge of infidelity in love, Desdemona felt broken-hearted. She lamented her lot, and felling very tired, fell asleep on her bed, over which she spread her wedding sheets.

Othello entered the bedroom with the cruel purpose of murdering her. He saw her sleeping, and thought he would not shed her blood. Being moved by her beauty and white skin, she kissed her repeatedly, and the more he kissed, the more sweet it tasted. He also wept simultaneously. Desdemona was roused by his kisses, and saw that his lower lip was trembling and his eyes were rolling in a frenzy. He asked her to say her prayers, and be prepared for death. Innocent Desdemona begged for mercy, and wanted to know her fault. Then Othello mentioned the name of Cassio and alleged that she had given him the handkerchief. Desdemona tried to say something in her defence. But at that very moment Othello strangled her to death with the bed-clothes.

Throughout the scene Othello behaved like one possessed. He was torn by grief, but he thought he must harden himself to do this sad business. He hesitated and delayed. He could not help loving and kissing Desdemona, even though he thought all the time that she was guilty of unfaithfulness. We feel the most profound pity for Desdemona who is perfectly innocent and devoted to her husband. She has to die a tragic death only because she is too good for this world, where there are vile creatures like lago.

(ওথেলোর মুখ থেকে প্রেমের প্রতি বিশ্বাসঘাতকতার অভিযোগ শুনে ডেসডিমনার মন একেবার ভেঙে পড়ল। সে তার দুর্ভাগ্যের জন্য বিলাপ করল। তারপর অত্যন্ত শ্রান্ত হয়ে বিছানায় শুয়ে ঘুমিয়ে পড়ল, যার ওপর সে তার বিয়ের চাদরটা পেতে নিয়েছিল।

ওথেলো শয়নকক্ষে প্রবেশ করল স্ত্রীকে হত্যা করার নিষ্ঠুর উদ্দেশ্য নিয়ে। সে তাকে নিদ্রিতা দেখল এবং ভেবে ঠিক করল যে তার রক্তপাত না ঘটিয়ে মারবে। তার অপূর্ব এবং শ্বেত গাত্রবর্ণ দেখে মুগ্ধ হয়ে সে তাকে বারংবার চুম্বন করতে লাগল এবং যতবারই চুম্বন করে, ততই তা বেশি করে স্বাদু মনে হতে লাগল। সেই সঙ্গে ওথেলোও কাঁদতে থাকল। তার চুম্বনের ফলে ডেসডিমনা ঘুম থেকে উঠে পড়ল এবং দেখল ওথেলোর নীচের ঠোঁট কাঁপছে, এবং তাঁর চোখ দুটো ঘুরছে এক ভীষণ ঘোরের মধ্যে। সে তাকে তার প্রার্থনা সেরে নিয়ে মৃত্যুর জন্য প্রস্তুত হতে বলল। নিষ্পাপ ডেসডিমনা ক্ষমাভিক্ষা করল, জানতে চাইল কী তার অপরাধ। তখন ওথেলো ক্যাসিওর নাম করল, অভিযোগ করল যে তাকে রুমালটা দিয়েছে ডেসডিমোনা। ডেসডিমোনা নিজের সপক্ষে কিছু বলতে চাইল। কিন্তু সেই মুহূর্তে ওথেলো বিছানার চাদর জড়িয়ে তাকে শ্বাসরোধ করে মেরে ফেলল।

গোটা দৃশ্যটায় ওথেলো এমন ব্যবহার করল যেন তাঁকে ভূতে পেয়েছে। সে শোকে বিদীর্ণ হয়ে যাচ্ছিল, কিন্তু তাঁর মনে হল এই দুঃখজনক কাজটা করার জন্য তাকে শক্ত হতে হবে। সে ইতস্তত ও বিলম্বও করেছে। ডেসডিমনা প্রেমে ব্যাভিচারিণী হয়েছে এই সিদ্ধান্ত নেবার পরও সে তাকে না ভালোবসে থাকতে পারেনি, চুম্বন না করে থাকতে পারেনি। আমরা বুঝি এটা কতখানি পরিতাপের বিষয়, কারণ ডেসডিমনা সম্পূর্ণ নিষ্পাপ এবং তার স্বামীর প্রতি তার ভক্তি অবিচল ছিল। তাকে করুণভাবে মৃত্যুবরণ করতে হল, কারণ সে এই জগতের পক্ষে বড়ো বেশি ভালো, যে জগতে ইয়াগোর মতো ঘৃণ্য জীব ঘুরে বেড়ায়।)

Ans:-The wily villain Iago had grudge against both Cassio and Othello. He planned to entangle Desdemona too, and lead all of them to their doom. Very craftily he poses as Othello's wellwisher, and advises him to carefully note what Desdemona and Cassio are doing. He just suggests that perhaps there may be something wrong and illegal in their relationship. On the one hand he advises Cassio to confer with Desdemona, so that the latter can plead for him to be re-instated as the Lieutenant. On the other hand he advises Othello not to easily grant this request of Desdemona, because it is born out of his love for Cassio. Iago insinuates that Cassio is infact Othello's rival in love. It makes Othello extremely jealous, and whatever he sees adds to his suspicion. Iago has a great knowledge of human psychology. He understands that Othello is credulous, heeasily believes what he is told impressively. So he delivers his medicine in small dose, but continuously. He drops hints like 'Desdemona deceived her father' When he and Othello find Cassio going away after a meeting with Desdemona, he says in an undertone-for the benefit of Othello- "I like not that." The medicine really works. Othello cannot sleep any longer; he takes no delight in arms; he loses 'all that pride and ambition which are a soldier's virtue'. Finally, when Othello wants some proof of his wife's love for Cassio, Iago takes a little time. He then makes his wife Emilia steal the handkerchief that Othello gave to Desdemona for constant keep, and drops it at Cassio's house. He now tells Othello that he saw Cassio wipe his face with that handkerchief. That clinches the issue. Othello learns that Desdemona has lost that handkerchief, and at once calls her unfaithful in love. Thus Iago succeeds in poisoning Othello's mind against Desdemona and Cassio.

(ধূর্ত খলনায়ক ইয়াগোর ওথেলো এবং ক্যাসিও দুজনের বিপক্ষেই শত্রুতা ছিল। সে তার পরিকল্পনার মধ্যে ডেসডিমনাকেও টেনে আনল, এবং তাদের সবাইকে ধ্বংসের পথে ঠেলে দিতে চাইল। অত্যন্ত চালাকি করে সে ওথেলোর শুভাকাঙ্ক্ষী সাজল, এবং তাকে উপদেশ দিল ডেসডিমনা আর ক্যাসিও কী করছে, তা ভালোভাবে পর্যবেক্ষণ করতে। সে শুধু একটা ইঙ্গিত দিল যে তাদের সম্পর্কের মধ্যে সম্ভবত একটা খারাপ ও অবৈধ কিছু আছে। এক দিকে ক্যাসিওকে সে উপদেশ দিল ডেসডিমনার কাছে বেশি করে আর্জি জানাতে, যাতে সে তার হয়ে ওথেলোর কাছে আবেদন করে তাকে লেফটেন্যান্ট পদে পুনর্বহাল করাতে পারে। অন্য দিকে ওথেলোকে সে পরামর্শ দিল যাতে সহজে ডেসডিমনার অনুরোধ না রাখে, কারণ এটা ডেসডিমনা ক্যাসিওর প্রতি অনুরাগবশতই করছে। ইয়াগো ইঙ্গিতে বোঝাল যে ক্যাসিও এখন কার্যত প্রেমে তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী। এতে ওথেলো অত্যন্ত ঈর্ষাপরায়ণ হয়ে উঠল এবং যা সে লক্ষ করে দেখল, তাতে তার সন্দেহ বেড়ে চলল। মনুষ্য চরিত্র বিষয়ে ইয়াগোর গভীর জ্ঞান আছে। সে বুঝল ওথেলোকে ঠিকমতো কিছু বলতে পারলে সে খুব সহজে তা বিশ্বাস করে নেয়। তাই সে একটু একটু করে, কিন্তু মোটেই না থেমে, তার ওষুধ ঢালতে লাগল ওথেলোর মনে। সে ছোটো ছোটো ইঙ্গিত দিতে থাকল, যেমন, 'ডেসডিমোনা তার বাবাকে ঠকিয়েছে। সে আর ওথেলো যখন ক্যাসিওকে ডেসডিমোনার সঙ্গে কথা বলে বাড়ি থেকে বেরোতে দেখল, তখন, ওথেলোকে বোঝার জন্যই, ইয়াগো নীচু গলায় বলল, 'আমার এটা মোটেই ভালো লাগছে না!' ওষুধ সত্যিই তার কাজ করতে লাগল। ওথেলো এখন আর ঘুমতে পারে না : অস্ত্রশস্ত্র কিছুই ভালো লাগে না। সে সমস্ত গর্ব এবং উচ্চাশার ভাবনা হারিয়ে ফেলল যা একজন সৈনিকের পরম ধর্ম। শেষ পর্যন্ত, যখন ওথেলো তার স্ত্রীর বিশ্বাসঘাতকতার প্রমাণ দাবি করল, ইয়াগো একটু সময় নিল। সে তারপর তার স্ত্রী এমিলিয়াকে দিয়ে সেই রুমালটা চুরি করাল, যেটা ওথেলো ডেসডিমোনাকে সর্বক্ষণ কাছে রাখার জন্য দিয়েছিল এবং সেটি ক্যাসিওর বাড়িতে ফেলে এল। এইবার সে ওথেলোকে বলল, ওই বিশেষ রুমালটা দিয়ে সে ক্যাসিওকে মুখ মুহুতে দেখেছে। এর ফলেই এ ব্যাপারে ওথেলোর পূর্ণ বিশ্বাস হল। ওথেলো খোঁজ নিয়ে জানল, ডেসডিমনা সে রুমালটি হারিয়েছে, এবং তৎক্ষণাৎ তাকে ভালোবাসার বিশ্বাসভঙ্গকারিণী বলে অভিযুক্ত করল। এইভাবে ইয়াগো ডেসডিমনা ও ক্যাসিওর বিরুদ্ধে ওথেলোর মন বিষাক্ত করে তুলতে সফল হল।)

Ans:-Othello himself tells Iago: "I know that my wife is fair, loves company and feasting, is free of speech, sings, plays and dances well; but where virtue is, these qualities are virtuous." Indeed there is a unique combination of beauty and virtues in Desdemona. She loves Othello, in spite of his black complexion, and this love is born out of sympathy and admiration for the man. She was deeply moved by listening to the stories of Othello's adventurous life. She remains ever true to her love, in spite of the fact that her father is grieved by it.

But at the same time she has a friendly affection for Cassio, and naturally wants to help him in his distress. If there had been no villain like lago around, no harm would have come from such friendly attachment. But lago, as an instrument of fate, poisons Othello's mind, and makes him suspect that Desdemona is in illicit love with Cassio. So the charge of infidelity in love is brought against this perfectly innocent and chaste lady by her own husband. It breaks her heart. She cries like a child.

As ill luck would have it, Desdemona fails to keep constant watch on her handkerchief given to her by Othello, and lago manages to have it and plant it at Cassio's. When Othello demands to see the handkerchief, Desdemona fails to produce it. This is her only fault, and for this she has to die a tragic death, being strangled by her own husband. In fact she is a pathetic victim of tragic fate; and it is ironical that she has to die because she is too good for this world, too noble compared to other characters around her.

(ওথেলো স্বয়ং ইয়াগোকে বলে, 'আমি জানি আমার বউ সুন্দরী, লোকজনের সঙ্গ এবং খাওয়া দাওয়া ভালোবাসে, সহজভাবে কথা বলে, গান গায়, বাজনা বাজায় এবং ভালো নাচে। যেখানে সততা আছে, এগুলি সবই সদগুণা সত্যিই ডেসভিমনার মধ্যে সৌন্দর্য এবং সদ্গুণের এক অনন্য সমন্বয় দেখা যায়। সে ওথেলোকে ভালোবাসে। তার গায়ের কালো রং সত্ত্বেও। তার এই ভালোবাসা লোকটার প্রতি সহানুভূতি ও সপ্রশংস মনোভাব থেকে সৃষ্ট হয়েছে। ওথেলোর দুঃসাহসিক জীবনের গল্প শুনে সে গভীরভাবে মুগ্ধ হয়েছিল। সে তার সেই প্রেমে অচলা হয়ে রইল, যদিও তার ফলে তার বাবা খুব দুঃখ পেলেন।

তবে সেই সঙ্গে ক্যাসিওর প্রতি তার বন্ধুসুলভ ভালোবাসাটা রয়েছে এবং স্বাভাবিকভাবে তার দুঃখের সময় সে তাকে সাহায্য করতে চায়। ইয়াগোর মতো খলনায়ক যদি তার আশেপাশে না থাকত, তবে এই রকম বন্ধুত্বের সম্পর্ক নিয়ে খারাপ কিছু ঘটার আশঙ্কা থাকত না। কিন্তু ইয়াগো, দুর্ভাগ্যের এক নিমিত্ত হিসেবে ওথেলোর মনকে বিষিয়ে তুলল এবং তার মনে সন্দেহ জাগিয়ে তুলল যে ডেসভিমনা এবং ক্যাসিওর মধ্যে অবৈধ প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে। আর সেইজন্য এই সম্পূর্ণ নিষ্পাপ ও বিশুদ্ধ মহিলার বিরুদ্ধে প্রেমে বিশ্বাসঘাতকতার অভিযোগ আনল তার স্বামী স্বয়ং। এতে তার বুক ভেঙে গেল। শিশুর মতো কাঁদতে থাকল সে।

দুর্ভাগ্যক্রমে ডেসডিমনা ওথেলোর দেওয়া রুমালটাকে সর্বক্ষণ চোখে চোখে রাখতে পারেনি এবং ইয়াগো সেটা কায়দা করে হাতিয়ে ক্যাসিওর বাড়িতে ফেলে আসে। ওথেলো যখন সেই রুমালটা দেখার জন্য দাবি জানাল, ডেসডিমনা সেটা দেখাতে পারল না। এটাই তার একমাত্র দোষ, এবং এর জন্যই তাকে করুণভাবে মরতে হল, নিজের স্বামীর হাতে শ্বাসরুদ্ধ হয়ে। সত্যিই সে দুর্ভাগ্যের এক করুণ শিকার; আর সবচেয়ে বড়ো প্রহসন হল, তাকে মরতে হল কারণ সে এই জগতের পক্ষে খুব বেশি ভালো ছিল, তার চারধারে বিরাজমান অন্যান্য চরিত্রের চেয়ে সে ছিল অনেকগুণ বেশি মহৎ। )

Ans:-Othello, the Black Moor, was a young Lenator of Venice. Brabantio was an oldsenator. He had a beautiful daughter called Desdemona. Othello became very close to Brabantio's family members because of his gentle nature. Othello, like other Senators, used to visit Brabantio's home whenever he got any leisure. Desdemona was fond of listening stories of foreign adventures and battles from Othello. Thus, Othello and Desdemona came close to each other. They fell in love with each other. Later on they married secretly causing great fury of Brabantio. Brabantio brought three serious charges against Othello in the Senate of Venice and prayed for justice from the Duke. According to him,

Firstly, Othello was expert in black magic and withcraft and used his 'spells' to win Desdemona's hand;

Secondly, Othello seduced Desdemona taking advantage of the latter's young age.

Lastly, Othello married Desdemona without taking any permission from Brabantio and thus he violated the rule of the land.
Othello appeared before the Senate and told the story of his love affair with fair Desdemona in presence of the Duke. He was able to overcome Brabantio's fury by seeking evidence of Desdemona. She confessed her love and admiration for Othello, the Moor. The Duke and other Senators, including Brabantio, were pleased to listen to the story of romantic love between the Black Moor and fair- complexioned Desdemona. Othello, the gifted story-teller could persuade the wise Senators to believe the fact that the craft of story-telling was enough to win the heart of Desdemona. Brabantio had to accept Othello as his Son-in- law but he could not forgive Desdemona who was ready to leave her father and so settle with Othello, her husband.

Thus, Othello was able to overcome the fury of Brabantio through his eloquent retelling of their love-affair till their marriage.

(ব্লাক মুর অথেলো ছিল ভেনিসের তরুণ সিনেটর। ব্র্যাবানশিও ছিলেন প্রবীণ সিনেটর। ডেসডিমনা নামে তাঁর একটি সুন্দর মেয়ে ছিল। অথেলো তার নম্র আচরণের জন্য ব্র্যাবানশিশুর পরিবারের সদস্যদের খুবই ঘনিষ্ঠ। হয়েছিল। ওথেলো তার অবসর সময়ে অন্যান্য সিনেটরের মতো নিয়মিত ব্র্যাবানশিওর বাড়ি যেত। ডেসডিমনা ওথেলোর কাছ থেকে বিদেশে তার দুঃসাহসিক অভিযান ও যুদ্ধের গল্প শুনতে খুব ভালোবাসত। এইভাবে ওথেলো ও ডেসডিমনার একে অপরের সংস্পর্শে এল। তারা একে অপরের প্রেমে পড়ল। পরে তারা গোপনে বিয়ে ব্র্যাবানশিও ক্রুদ্ধ হন। ব্র্যাবানশিও ওথেলোর বিরুদ্ধে ভেনিসের সিনেটে তিনটি গুরুতর অভিযোগ আনলেন ও রাজার কাছে ন্যায়বিচার প্রার্থনা করলেন। তাঁর কথামতো-

প্রথমত, ওথেলো শয়তানি জাদুবিদ্যা ও ডাকিনীবিদ্যায় পারদর্শী ছিল ও সেই জাদু ব্যবহার করে সে ডেসডিমনার মন জয় করেছিল।

দ্বিতীয়ত, ওথেলো ডেসডিমনার কিশোর বয়সের সুযোগ নিয়ে তাকে প্ররোচিত করেছিল।

সর্বশেষে, ওথেলো ব্র্যাবানশিও-র অনুমতি ছাড়াই ডেসডিমনাকে বিয়ে করেছিল, আর এইভাবে সে ভেনিসের আইন ভেঙেছিল।

ওথেলো সিনেটে উপস্থিত হয়ে ও ডিউকের সামনে সুন্দরী ডেসডিমনার সঙ্গে তার প্রেমের গল্পটা বলল। সে ব্র্যাবানশিওর ক্রোধ জয় করল ডেসডিমনার সমর্থন চেয়ে। মুর ওথেলোর প্রতি সে তার ভালোবাসা স্বীকারকরল ও শ্রদ্ধা প্রকাশ করল। ব্র্যাবানশিও সহ ডিউক ও অন্যান্য সিনেটর কৃস্নাঙ্গ মুর ওথেলো ও ডেসডিমনার রোমান্টিক প্রেমের গল্পটা শুনে খুশি হলেন। পারদর্শী গল্পকথক জ্ঞানী ওথেলো সিনেটরদেরকে বিশ্বাস করিয়েছিল যে গল্প বলার কৌশলই ডেসডিমনার মন জয় করার জন্য যথেষ্ট ছিল। ওথেলোকে জামাই বলে মেনে নিতে হয়েছিল ব্র্যাবানশিওকে কিন্তু তিনি করতে পারলেন ডেসডিমনাকে ক্ষমা না যে তার বাবাকে ত্যাগ করে তার স্বামী ওথেলোর সঙ্গে থাকতে প্রস্তুত ছিল।)

Ans:-lago was an elderly nobleman by rank who was jealous of Othello and Cassio. Othello's success in marrying Desdemona was another reason why Iago disliked Othello, the Black Moor. Iago was also a keen observer who was an expert in studying human nature.

He was crafty-very clever as a villain-and was fault-finding in nature. He was most dissatisfied with Othello who had become the General just after his marriage with Desdemona. He was also envious to Cassio who was promoted to the position of Lieutenant General by no other than Othello himself.

Iago hatched a plot so that he could easily ruin Othello's glory of position as War General. Moreover, Iago had racial hatred towards Othello whom he considered ill-suited for the possession of a beautiful wife like Desdemona.

lago provoked Cassio to drinks when the latter was on duty to guard the army men and to maintain the discipline. It resulted in a chaos and confusion in the army. Iago misinformed Othello in such a way that held Cassio responsible for the riot in the army. Cassio was suspended from service. Then Iago advised him to persuade Desdemona to get his position back in the army.

Meanwhile, lago used his craft of showy friendliness and fake concern for Othello. He was able to sow seeds of jealousy in Othello's mind towards Cassio- Desdemona friendship. Desdemona brought the suit of Cassio before Othello and requested that Cassio should get his lieutenant ship back. Iago provoked Othello to take revenge for Desdemona's illicit affair with Cassio. Later on he used his wife, Emilia to steal Desdemona's handkerchief and told Othello that Desdemona had given it to Cassio. Thus, Iago was crafty enough to make Othello a murderer of his innocent wife and to his tragic death.

(ইয়াগো পদমর্যাদা অনুসারে একজন প্রবীণ অভিজাত পুরুষ যে ওথেলো ও ক্যাশিও-র প্রতি বিদ্বেষী ছিল। ডেসডিমনাকে বিয়ে করার জন্য ব্ল্যাক মুর ওথেলোকে সে পছন্দ করত না, মানব প্রকৃতি পাঠেও ইয়াগো ছিল অত্যন্ত পারদর্শী।

ইয়াগো ছিল চতুর–শয়তানের মতো চালাক ও ছিদ্রান্বেষী স্বভাবদুষ্ট ব্যক্তি। সে ওথেলোর ওপর অত্যন্ত অসন্তুষ্ট ছিল যে কিনা ডেসডিমনাকে ঠিক বিয়ে করার পর জেনারেল হয়েছিল। সে ক্যাশিও-র প্রতিও ঈর্ষাপরায়ণ ছিল যাকে ওথেলো লেফটেন্যান্ট পদে ওথেলোর দ্বারা উন্নীত করেছিল।

ইয়াগো এক চক্রান্তের ছক করেছিল যাতে করে যুদ্ধের সেনাধ্যক্ষ হিসেবে ওথেলোর গৌরবকে সহজেই নষ্ট করা যায়। অধিকন্তু, ইয়াগোর ওথেলোর প্রতি জাতিবিদ্বেষ ছিল যাকে সে ডেসডিমনার মতো সুন্দরী স্ত্রী পাওয়ার ক্ষেত্রে অনুপযুক্ত মনে করেছিল।

ক্যাশিও যখন সৈন্যদের মধ্যে নিয়মশৃঙ্খলা বজায় রাখার ব্যাপারে নজরদারি করছিল ইয়াগো তখন তাকে সুরাপানে প্ররোচিত করল। এতে সৈন্যদলে বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি হল। ইয়াগো ওথেলোকে ভুল সংবাদ দিল যে ক্যাশিও এই বিশৃঙ্খলার জন্য দায়ী। ক্যাশিও চাকরি থেকে পদচ্যুত হল, তখন ইয়াগো ক্যাশিওকে পরামর্শ দিল সৈন্যদলে তার পদ ফিরে পাওয়ার জন্য ডেসডিমনাকে প্ররোচিত করতে।

ইতিমধ্যে ইয়াগো ওথেলোর প্রতি তার ভাঁড় বন্ধুত্বভাব ও মেকি দায়িত্বের কৌশল প্রয়োগ করল। ক্যাশিও- ডেসমিনার বন্ধুত্ব সম্পর্কে ওথেলোর মনে ঈর্ষার বীজ বপন করতে সফল হয়েছিল। ডেসডিমনা ক্যাশিও-র ব্যাপারটা ওথেলোর কাছে তুলে ধরল ও তাকে তার পদ ফিরিয়ে দেওয়ার জন্য অনুরোধ করল। ইয়াগো ক্যাশিও-র সঙ্গে ডেসডিমনার অবৈধ সম্পর্কের প্রতিশোধ নিতে ওথেলোকে প্ররোচিত করল। পরে সে তার স্ত্রী এমিলির দ্বারা ডেসডিমনার রুমাল চুরি করল ও ওথেলোকে বলল যে ডেসডিমনা সেটা ক্যাশিওকে দিয়েছিল। এইভাবে ইয়াগো ওথেলোকে তার নিজের নির্দোষ স্ত্রীর ঘাতক ও তার নিজের মর্মান্তিক মৃত্যু ঘটাতে যথেষ্ট ধূর্ততার পরিচয় বহন করে।)

Ans:- Othello loved Desdemona and Desdemona too loved him. Desdemona was so much in love that she married the Black Moor going against the tradition of her family and beyond her father's knowledge. After their marriage, Othello was made the General and was posted in the island of Cyprus. Desdemona who loved Romantic adventure, joined Othello.

Othello promoted Cassio to the post of Lieutenant General as the latter was a trusted officer under Othello and a common friend of him and Desdemona as well.

Iago was a greedy and crafty officer in the same army under Othello's command. He was jealous of Othello's fortune of having fair Desdemona as his wife. He was also jealous of Cassio's promotion. He hatched a plot of military riot putting all blames on Cassio who was 'proved drunken' during the latter's 'Duty Hours'. Cassio was removed from his military post because of indiscipline. We know that it was due to lago's insistence; Cassio drank wine and fell a victim to lago's well-knit trap.

Othello was very easy-believing officer and was the next target of lago. Iago inserted the element of suspicion and distrust in Othello's mind regarding the friendship between Desdemona and Cassio. Iago advised Cassio to use Desdemona as his advocate in Othello's absence and informed Othello about Cassio's secret love meetings with Desdemona. Othello lost his patience of mind and sleep the moment 'suspicion and distrust' had started misguiding his wit and reason. He distrusted his friend, Cassio who was a bridge between him and Desdemona earlier, of having illicit relation with his wife. He stifled Desdemona to death for his suspicion of her character and passed an order for secret killing of Cassio. Thus, we see how the element of suspicion and distrust replaced Othello's love for Desdemona.

(ওথেলো ডেসডিমনাকে ভালোবাসত আর ডেসডিমনাও ওথেলোকে ভালোবাসত। ডেসডিমনা ওথেলোকে এতই ভালোবাসত যে সে তাদের পরিবারের রীতিনীতি উপেক্ষা করে ও তার বাবার অজান্তে তাকে বিয়ে করল। তাদের বিয়ের পর ওথেলোকে জেনারেল পদে আসীন করাল ও সাইপ্রাস দ্বীপে নিয়োগ করা হল। ডেসডিমনা রোমাঞ্চকর দুঃসাহসিক অভিযান ভালোবাসত আর তাই সেও ওথেলোর সঙ্গে গেল।

ওথেলো ক্যাশিওকে লেফটেন্যান্ট জেনারেল পদে উন্নীত করল যেহেতু ক্যাশিও তার বিশ্বস্ত আধিকারিক ও তার স্ত্রী ও তার পরম বন্ধু ছিল।

ইয়াগো ওথেলোর অধীন সেই সৈন্যদলের এক লোভী ও ধূর্ত আধিকারিক ছিল। সুন্দরী ডেসডিমনাকে ওথেলোর স্ত্রী হিসেবে পাওয়ার ভাগ্যের ওপর সে ঈর্ষা করত। সে ক্যাশিওর পদোন্নতির জন্যও ঈর্ষাপরায়ণ ছিল। সে চক্রান্ত করে এক সামরিক দাঙ্গা ঘটিয়ে ক্যাশিও-র ওপর দোষ চাপাল যাকে সে কর্তব্যরত সময়ে সুরাপানে প্ররোচিত করেছিল। ক্যাশিওকে পদচ্যুত করা হল শৃঙ্খলাভঙ্গ করার জন্য। আমরা জানতে পারি যে এটা ঘটেছিল ইয়াগোর প্ররোচনায়। ক্যাশিও সুরাপান করল ও ইয়াগোর ধূর্ততার ফাঁদের শিকার হল।

ওথেলো এক সহজ বিশ্বাসী আধিকারিক ছিল ও ইয়াগোর পরবর্তী শিকার। ডেসডিমনা ও ক্যাশিও-র বন্ধুত্ব সম্পর্কে ওথেলোর মনে সন্দেহ ও অবিশ্বাসের বিষয় সঞ্চার করল। ইয়াগো ওথেলোর অনুপস্থিতিতে ক্যাশিওকে ডেসডিমনার সাহায্য নিতে পরামর্শ দিল ও ওথেলোকে জানাল ক্যাশিও-ডেসডিমনার গোপন মেলামেশার কথা। ওথেলো তার স্থৈর্য ও নিদ্রা হারাল যখন সন্দেহ ও অবিশ্বাস তার বুদ্ধি ও যুক্তিকে বিপথগামী করল। সে তার বন্ধু ক্যাশিওকে অবিশ্বাস করল তার স্ত্রীর সঙ্গে তার অবৈধ সম্পর্ক থাকার জন্য, যে একসময় ডেসডিমনা ও তার মধ্যে সংযোজক ছিল। ডেসডিমনার চরিত্রে সন্দিহান হয়ে ওথেলো তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করল। ও গোপনে ক্যাশিওকে হত্যা করার আদেশ দিল। এইভাবে আমরা জানতে পারি কীভাবে সন্দেহ ও অবিশ্বাস ডেসডিমনার প্রতি ওথেলোর ভালোবাসা কেড়ে নিয়েছিল।)